logo

মাতৃজঠরেই শিশুকে এবার গান শোনাবে Vaginal Babypod

মাতৃজঠরেই শিশুকে এবার গান শোনাবে Vaginal Babypod

মহাভারতের অভিমন্যুর কথা মনে আছে? মা শুভদ্রার গর্ভে থাকাকালীনই বাবা অর্জুনের মুখে চক্রব্যুহ ভেদ করার কৌশল শিখে নিয়েছিল সে। তবে শেষটা আর শোনা হয়ে ওঠেনি, তাই যুদ্ধের সময় তা ভেদ করে আর বেরতে পারেনি। চক্রব্যুহের পাঠ কিংবা নার্সারি রাইমস, আপনার বাচ্চা মাতৃগর্ভে কী শুনবে তা কিন্তু আপনি ঠিক করে ফেলতে পারেন। সৌজন্য বেবিপড।

গর্ভবতী মহিলাদের জন্য একটি বিশেষ ধরনের ইয়ারফোন বানিয়েছেন বার্সেলোনার ইনস্টিটিউট মার্কেজ-এর একদল গবেষক। নাম দেওয়া হয়েছে বেবিপড। এর সৌজন্যেই মা তাঁর নিজের বাচ্চাকে পছন্দসই সঙ্গীত, কবিতা কিংবা স্রেফ তাঁর নিজের গলার স্বর অনায়াসে শোনাতে পারেন। কী ভাবে? এই হেডফোন আইফোনের সঙ্গে অ্যাটাচ করে গর্ববতী মহিলারা তাঁদের যৌনিতে প্রবেশ করাতে পারবেন। এটাকে বলা হচ্ছে মিউজিকাল ট্যাম্পন। এর সঙ্গে দু'টি ইয়ারফোনও থাকছে। যাতে আপনি এবং আপনার বাচ্চা একসঙ্গে একই গান গুনগুন করতে পারেন।

বেশ কিছু রিসার্চে প্রকাশিত হয়েছে, গর্ভাবস্থায় বাচ্চাদের মস্তিষ্কের বিকাশে বিশেষ সাহায্য করে সঙ্গীত। একে অনেকে মিউজিক থেরাপি-ও বলছেন। গবেষকরা জানাচ্ছেন, বাচ্চার বয়স যখন ১৬ সপ্তাহে পৌঁছায়, তখনই তার শ্রবণেন্দ্রীয় পুরোপুরি বিকশিত হয়ে যায়। ফলে আপনি কি বলছেন, কোনও গান শুনছেন, কোনও পরিবেশে বাস করছেন, তা সবই আপনার বাচ্চার কানে পৌঁছায়। গবেষকদের মতে, যে সব বাচ্চাদের জন্মের আগে থেকে ভালো গান বা রাগসঙ্গীত শোনানো হয়, তাদের মস্তিষ্কের বিকাশ অন্যান্য বাচ্চাদের তুলনায় বেশি হয়।