logo

খালেদাকেও সুষ্ঠু রাজনীতির আহ্বান আওয়ামী লীগের

খালেদাকেও সুষ্ঠু রাজনীতির আহ্বান আওয়ামী লীগের

ঢাকা, ০৫ জানুয়ারি- বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, গণতন্ত্র রক্ষা করার জন্য মানুষ পুড়িয়ে মারার দরকার নেই, দেশের সম্পদ নষ্ট করার দরকার নেই। আসুন আমরা সবাই মিলে সুষ্ঠু রাজনীতির সংস্কৃতিকে এগিয়ে নিয়ে যাই।

মঙ্গলবার দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় বর্ষপূর্তির দিন ‘গণতন্ত্রের বিজয় দিবস’ পালনের লক্ষ্যে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ের সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

প্রসঙ্গত, এ দিনটিকে ‘গণতন্ত্র হত্যা’ দিবস হিসেবে পালন করে বিএনপি। ওই উপলক্ষে এক সমাবেশে খালেদা জিয়া বলেন, ‘আসুন আমরা আলোচনায় বসি, সংলাপে বসি। কোনো রাগ ক্ষোভ দুঃখ নেই। আসুন, গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে একসাথে কাজ করি। দেশ ও জনগণের স্বার্থে আসুন আমরা একসাথে কাজ করি। আমরা চাই আলাপ আলোচনার মাধ্যমে সমাধান। গণতন্ত্রের জন্য একসঙ্গে কাজ করতে।’

অবিলম্বে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের আহ্বানও জানান খালেদা জিয়া। বলেন, ‘তারা জোর করে ক্ষমতায় আছে, তাই তাদেরই এটা করতে হবে।’

তবে সৈয়দ আশরাফ তার বক্তব্যে খালেদা জিয়াকে তীর্যক বক্তব্যে বিদ্ধ করতেও ছাড়েননি। তিনি বলেন, ‘৫ জানুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত ৬৪ জন হত্যা ও ১৫শ মানুষকে আহত করেছেন খালেদা জিয়া। সাতশ গাড়ি পুড়িয়েছেন, ভর্তি পরীক্ষা বন্ধ করেছেন কিসের জন্য? গণতন্ত্রের জন্য? কিন্তু গণতন্ত্রের জন্য মানুষ হত্যা করতে হয় না। আপনি (খালেদা জিয়া) চেয়েছিলেন বাংলাদেশকে একটি অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিনত করতে। তাই আপনি রক্তের সেই হলি খেলা খেলেছিলেন।’

খালেদা জিয়ার উদ্দেশ্যে আশরাফ আরো বলেন, ‘আপনার অপকর্ম এ দেশের মানুষ কোনোদিন ভুলে যেতে পারে না। এবার সুষ্ঠু রাজনীতিতে পথে ফিরে আসুন। এতে করে আগামীতে সুষ্ঠু নির্বাচন হবে, আর ওই নির্বাচনে একটি মানুষেরও যেন প্রাণ দিতে না হয়।’ 

তিনি বলেন, ‘জনগণই আওয়ামী লীগের শক্তি। আমরা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে দেশকে আরো শক্তিশালী করবো।’ আগামী ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান শেখ হাসিনার সমাবেশে সবাইকে অংশ নেয়ার আহ্বানও জানান সৈয়দ আশরাফ।

সমাবেশে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘দেশে গণতন্ত্র আছে কি না- এমন শঙ্কায় পড়েছিল দেশ। ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের মধ্য দিয়ে সেই শঙ্কা দূর হয়। এই নির্বাচনের মাধ্যমে শেখ হাসিনা গণতন্ত্রের বিজয় এনে দিয়েছেন।’

এসময় সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন কৃষিমন্ত্রী ও দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ আজিজ, সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জেল হোসেন চৌধুরী মায়া, খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, সংসদ সদস্য হাজী সেলিম, মহানগরের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ।