logo

সত্যিকার ক্ষুধা লাগার পর খাওয়ার অভ্যাস করুন

সত্যিকার ক্ষুধা লাগার পর খাওয়ার অভ্যাস করুন

খাওয়ার জন্য শরীরের ক্ষুধা লাগা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আপনার যদি ক্ষুধা লাগে তাহলেই কেবলমাত্র খেতে যান। অন্যথায় তা দেহের ওজন বৃদ্ধিসহ নানা সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে আইএএনএস।

গবেষকরা জানিয়েছেন, আমাদের খাবার খাওয়ার জন্য আগ্রহী হয়ে ওঠার বহু কারণ রয়েছে। এসব কারণের মধ্যে রয়েছে একঘেয়েমি থেকে মুক্ত হওয়ার কৌশলও। আর প্রকৃত অর্থে ক্ষুধার্ত না হয়েই খাবার খেয়ে নিলে তা স্বাস্থ্যের ক্ষতি করে।

বহু মানুষই খাবার খাওয়ার জন্য ক্ষুধার অপেক্ষা করে না। অনেকেই খাবারের স্বাদ আস্বাদনের জন্য খেয়ে থাকে। খাবারের নানা বিজ্ঞাপনও এক্ষেত্রে মানুষের মনে বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে। এসব কারণে মানুষ খাবার খেতে আগ্রহী হয়ে ওঠে।

এ বিষয়ে একটি গবেষণা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগোর ইউনিভার্সিটি অব ইলিনয়েসের গবেষক ডেভিড গ্যাল। তিনি জানান, খাবার খাওয়ার জন্য কিছুটা ক্ষুধার্ত হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করা উচিত।

এ গবেষণায় মোট ৪৫ জন আন্ডারগ্রাজুয়েট শিক্ষার্থী অংশ নেন। এতে তাদের ক্ষুধার মাত্রা জানাতে বলা হয়। এরপর তাদের কার্বহাইড্রেটযুক্ত খাবার পরিবেশন করা হয়। পরবর্তীতে তাদের শরীরের নানা প্রতিক্রিয়া পর্যবেক্ষণ করা হয়।

এতে অংশগ্রহণকারীদের সার্বিক স্বাস্থ্য, রক্তের শর্করা ও কার্বহাইড্রেট গ্রহণের পরিমাণ লিপিবদ্ধ করা হয়। গবেষকরা জানান, রক্তের গ্লুকোজের মাত্রা কার্বহাইড্রেট খাওয়ার পর সাধারণত বেড়ে যায়। তবে এ মাত্রা যদি সামান্য পরিমাণে বাড়ে তাহলে তা স্বাভাবিক। তবে তা যদি বেশি মাত্রায় বাড়ে তাহলে তা দেহের কোষগুলোর জন্য ক্ষতির কারণ হয়।

গবেষকরা গবেষণার ফলাফলে জানিয়েছেন, যারা ক্ষুধার্ত না হয়েই খাবার খান তাদের রক্তের গ্লুকোজের পরিমাণ ক্ষতিকর পর্যায়ে যেতে পারে। আর এ কারণে ক্ষুধার্ত হওয়ার পরেই খাওয়ার কথা বলছেন গবেষকরা্ গবেষণার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে অ্যাসোসিয়েশন ফর কনজিউমার রিসার্চ-এর জার্নালে।