logo

শাবনূর বললেন, ‘জামাই ঠিক আছে...?’

সোমেশ্বর অলি


শাবনূর বললেন, ‘জামাই ঠিক আছে...?’

স্বামী অনিক মাহমুদের সঙ্গে শাবনূর

ঢাকা, ০৩ জানুয়ারি- ‘বুঝলেন তো? শাবনূর কিন্তু আবার শুকাইতেছে…দেখেন দেখেন। ফেসটা কিন্তু আগের মতোই আছে, হাসিটা সেইরাম…’। ঘড়ির কাঁটা তখন রাত ৯টার কাছাকাছি। শুক্রবার (১ জানুয়ারি) রাজধানীর শিশু একাডেমিতে ‘মান্না উৎসব ২০১৬: ড্রিমস অব মান্না’য় আসা দর্শকদের একজনের মন্তব্য এটি। তার অপেক্ষা শাবনূরের জন্য। তিনি কিছু কথা বলবেন, পারফর্ম করবেন। শাবনূর সেই ভক্তের প্রত্যাশা পূরণ করেছিলেন না জেনেই, অন্যভাবে। 


মঞ্চে শাবনূরকে নিয়ে তখন খুনসুঁটিতে ব্যস্ত দুই নায়ক ফেরদৌস ও রিয়াজ। অনুষ্ঠান উপস্থাপনার পুরোটা জুড়ে একে অপরকে ‘মামা’ সম্বোধনে আর কৌতুকে দর্শকদের হাসিয়েছেন, আনন্দিত করেছেন তারা। শাবনূর যখন মঞ্চে, তার দুই পাশে দাঁড়ালেন ফেরদৌস ও রিয়াজ। এই দৃশ্যটা  কতোখানি ভালো লাগা ছড়িয়ে দিতে পারে সেটা বুঝেছেন বাংলাদেশি চলচ্চিত্রের নিয়মিত দর্শকরা। মান্না উৎসবের মঞ্চে শাবনূরকে কয়েকবার ডেকে নেওয়া হয়। কখনো প্রধান ও বিশেষ অতিথির সঙ্গে, কখনোবা ফেরদৌস-রিয়াজের ‘অনর্থক বকবকানি’তে সঙ্গ দেওয়ার জন্য। শাবনূরের সাড়া মিলেছে প্রতিবার। এর পেছনে বড় যে কারণ সেটা হলো, শাবনূরের প্রতি দর্শকদের আগ্রহ। যা’ হোক, এবার আসা যাক, শিরোনামের প্রসঙ্গে। 

শাবনূর মঞ্চে উঠে মান্নাকে নিয়ে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রেখেছেন। শেষবারের মতো মঞ্চ ছাড়বেন তিনি। কিন্তু ‘বিপত্তি’ বাঁধালেন দুই উপস্থাপক। রশিকতায় মেতে উঠলেন দু’জনই। ফেরদৌস বললেন, ‘তোমাকে যেতে দেবো না। যেও না সাথী…’। শাবনূর যেতে পারলেন না। যেন মায়ায় পড়ে গেলেন, রূপালি পর্দার কোনো দৃশ্যের মতো। 

এদিকে রিয়াজ শর্ত জুড়ে দিলেন। শাবনূর বললেন, ‘কী শর্তে আমি যেতে পারবো?’ রিয়াজের মুখে রহস্যের হাসি। তিনি একবার দর্শক, একবার ফেরদৌস একবার শাবনূরের দিকে তাকিয়ে মাইক্রোফোনে বললেন, ‘এই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি থেকে, আমাদের হৃদয় থেকে যে তোমাকে ছিনিয়ে নিয়ে গেলো, একমাত্র সেই পারে তোমাকে নিয়ে যেতে। ডাকো তাকে। আমরা তাকে দেখতে চাই…।’ রিয়াজের রশিকতায় হাসির ঢেউ গড়ালো দর্শক সারিতে। তারা সবাই বুঝতে পেরেছিলেন যে, শাবনূরের স্বামী অনিককে এবার দেখতে পাওয়া যাবে সরাসরি। দর্শক করতালির মাধ্যমে সায় জানালো। মাইক্রোফোনে উপস্থাপকেরাই ঘোষণা করলেন, ‘অনিক, তুমি মঞ্চে আসো। আমরা তোমাকে দেখতে চাই। সাহস থাকলে আমাদের কাছ থেকে শাবনূরকে এবার নিয়ে যাও…’। 


দর্শকদের করতালি তখনও চলছে। ভিড় ঠেলে মঞ্চে উঠে এলেন অনিক। দাঁড়ালেন পর্দার জুটি ও তিন বন্ধু শাবনূর, ফেরদৌস ও রিয়াজের পাশে। ফটোগ্রাফাররা আয়েশ করে ক্যামেরাবন্দি করলেন সবাইকে। সম্ভবত প্রথমবারের মতো এমন কোনো বড় আয়োজনে শাবনূর স্বামী অনিককে নিয়ে হাজির। এ দিক দিয়ে বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ধরা পড়লো। যা’ হোক, অনিক মান্নাকে নিয়ে কিছু কথা বললেন। এবার শাবনূরের হাতে মাইক্রোফোন দিলেন ফেরদৌস, স্বামীকে নিয়ে কিছু কথা বলতে হবে। রশিক দুই উপস্থাপকের পাল্লায় পড়ে শাবনূরও কম যান না। তিনি ছোট্ট একটি প্রশ্ন ছুঁড়ে দিলেন সবার উদ্দেশে। শাবনূর বললেন, ‘কী, আমার জামাই ঠিক আছে? পছন্দ হয়…?’

দর্শক সারিতে তখন তুমুল করতালি। অনিককে নিয়ে ফেরদৌসের ‘সো স্মার্ট গাই’ মন্তব্যটাই যেন সত্যি হলো। জনপ্রিয় নায়িকা শাবনূরের ভক্তরা জানিয়ে দিলেন যে, জামাই তাদের খুব পছন্দ হয়েছে। শাবনূর জীবনসঙ্গীর হাত ধরে হাসিমুখে ছেড়ে যাচ্ছেন মঞ্চ, পেছনে ‘ব্যর্থ প্রেমিক’-এর মতো দাঁড়িয়ে রইলেন ফেরদৌস ও রিয়াজ…