logo

প্রধান বিচারপতির আদালত কক্ষে ছাদ চুঁইয়ে পড়ছে বৃষ্টির পানি

মাহমুদুল আলম


প্রধান বিচারপতির আদালত কক্ষে ছাদ চুঁইয়ে পড়ছে বৃষ্টির পানি

ঢাকা, ১১ সেপ্টেম্বর- সুপ্রিম কোর্টে প্রধান বিচারপতির আদালত কক্ষে সাধারণের আসা-যাওয়ার জন্য রয়েছে দুটি দরজা। এর মধ্যে একটি দরজা এই আদালত কক্ষে প্রধান বিচারপতির এজলাসের একদম কাছাকাছি।

আজ মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে দেখা গেল এই দরজার ঠিক সামনে ছাদ চুঁইয়ে অনর্গল পানি পড়ছে। উপর থেকে পড়া এই পানি নিচে মেঝেতে গড়িয়ে ভবনের বাইরের দিকে যাচ্ছে। এ সময় মুষলধারায় বৃষ্টি হচ্ছিল।
তবে তখন এই আদালত কক্ষে বিচার কার্যক্রম চলছিল না। দরজা দুটি ছিল বন্ধ। সে কারণে আদালত কক্ষের ভেতরে বৃষ্টির পানি পড়েছে কিনা বা তাতে কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে কিনা, তা জানা যায়নি।

একই সময় প্রধান বিচারপতির সচিব (হাইকোর্ট বিভাগ) মুহাম্মদ রেজাউল হকের কক্ষের সামনেও ছাদ চুঁইয়ে পানি পড়তে দেখা যায়। প্রধান বিচারপতির খাস কামরার কাছে অবস্থিত কক্ষটিতে তখন বালতি পেতে পানি সামলানো হয়।

জানতে চাইলে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল জাকির হোসেন বলেন, এটি অনেক পুরনো ভবন তো, তাই এমন হচ্ছে। আমাদের প্রধান প্রকৌশলী দেখবেন। তারপরও আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি।

প্রসঙ্গত, সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা দায়িত্বে থাকাকালে বলেছিলেন, আমি যে চেয়ারে বসি সেখানে বৃষ্টির পানি পড়ে। গত বছর ২৯ জুলাই এক অনুষ্ঠানে একথা বলেছিলেন তিনি।

নতুন একটি ভবন নির্মাণ না করা হলে মাঠে বসে বিচারকাজ করতে হবে মন্তব্য করেছিলেন তৎকালীন প্রধান বিচারপতি।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হককে উদ্দেশ্য করে তিনি আরো বলেছিলেন, মাননীয় মন্ত্রী আপনাকে বলছি, সুপ্রিম কোর্টের মূল ভবন ভঙ্গুর অবস্থায় রয়েছে। আমি যে চেয়ারে বসি সেখানে বৃষ্টির পানি পড়ে। নতুন একটা এনেক্স ভবন না করলে মাঠে বসে বিচার কাজ করতে হবে। মাননীয় মন্ত্রী বিচার বিভাগ কিভাবে চলবে? 

তথ্যসূত্র: পরিবর্তন
এনওবি/১৭:৪৯/১১ সেপ্টেম্বর