logo

‘বহু অযোগ্য ব্যক্তিকে নোবেল পুরষ্কার দেওয়া হয়েছে, এদের মধ্যে একজন সুচি’

‘বহু অযোগ্য ব্যক্তিকে নোবেল পুরষ্কার দেওয়া হয়েছে, এদের মধ্যে একজন সুচি’

বিশ্বে বহু মানুষকে নোবেল শান্তি পুরষ্কার দেওয়া হয়েছে। যারা ওই পুরষ্কার পাওয়ার একেবারেই যোগ্য নয়। মায়ানমারের সর্বোচ্চ নেত্রী আং সান সুচির প্রসঙ্গ তুলে এমনই মন্তব্য করেছেন 'নির্বাসিত' লেখিকা তসলিমা নাসরিন।

মায়ানমারের রাখাইন প্রদেশে রোহিঙ্গা মুসলিমদের নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে সমস্যা চলছে। জাতি সংঘর্ষে রক্তাক্ত এই এলাকা থেকে লক্ষাধিক রোহিঙ্গা মুসলিম প্রতিবেশী বাংলাদেশের চলে আসছেন৷ অভিযোগ, মায়ানমার সেনাবাহিনী অকথ্য অত্যাচার চালাচ্ছে৷ এই সকল কারণে একবিংশ শতকেও ফের উপমহাদেশে দেখা দিয়েছে উদ্বাস্তু সমস্যা।

মায়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গাদের দ্রুত ফিরিয়ে নেওয়ার আবেদন করেছে বাংলাদেশ সরকার৷ পাশাপাশি, ভারতে আসা রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে দেওয়া হবে বলেও জানিয়ে দিয়েছে দিল্লী। যদিও ভারতে আগত রোহিঙ্গারা এদেশে মরতে রাজি থাকলেও নিজের দেশ মায়ানমারে ফিরে যেতে নারাজ।

এই চরম প্রতিকূল পরিস্থিতির মধ্যেও রোহিঙ্গা ইস্যুতে মুখে কুলুপ এঁটেছেন মায়ানমারের সর্বোচ্চ নেত্রী আং সান সুচি। নোবেল শান্তি পুরষ্কার বিজয়ী এই মহিলার নীরব থাকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে নানা মহলে। সেই বিতর্ক আরও উসকে দিলেন তসলিমা নাসরিন। তিনি সরাসরি আক্রমণ করলেন নোবেল কমিটিকে।

বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে বাংলাদেশের বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন ট্যুইটারে লিখেছেন, "বহু অযোগ্য মানুষকে নোবেল শান্তি পুরষ্কার দেওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে একজন হলেন আং সান সুচি। জাতিগত নির্মূল এবং মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধকে তিনি সমর্থন করছেন।"

আর/১০:১৪/০৭ সেপ্টেম্বর